আত্রাইয়ে শীতার্তদের পাশে ইউএনও ছানাউল ইসলাম

আত্রাইয়ে শীতার্তদের পাশে ইউএনও ছানাউল ইসলাম

এম এ হেলাল/আবু হেনা:

নওগাঁর আত্রাইয়ে শীতার্ত ছিন্নমূল, অসহায়, গরীব ও খেটে খাওয়া মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণের মাধ্যমে শীতার্তদের পাশে দাঁড়িয়েছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) ছানাউল ইসলাম। আত্রাইয়ে শৈত প্রবাহের শুরু থেকে আজ পর্যন্ত তাপমাত্রা ৭-১১ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে অবস্থান করছে।

লাগাতার প্রবাহিত এই মৃদু শৈতপ্রবাহের কবলে পড়ে মানবেতর জীবন-যাপন করছে ছিন্নমূল, গরীব, অসহায় খেটে খাওয়া মানুষরা। তবে গত দু’দিন যাবত তীব্র শীতের সঙ্গে হিমেল হাওয়া বয়ে যাওয়ায় শীতের তীব্রতা নতুন মাত্রা যোগ করেছে। হিমেল হাওয়া আর এই শীতের তীব্রতায় জবুথবু হয়ে পড়েছে ছিন্নমূল ও খেটে খাওয়া মানুষরা। গরম কাপড়ের অভাবে শীত নিবারন করা তাদের কাছে খুবই কষ্টকর হয়ে পড়েছে।

সরকারি ভাবে যে শীতবস্ত্রগুলো বিতরন করা হচ্ছে তা প্রয়োজনের তুলনায় খুবই নগন্য। এই সব ছিন্নমূল, গরীব, অসহায়, খেটে খাওয়া মানুষ ও এতিমখানার এতিম শিক্ষার্থীদের যেন এই তীব্র শীত স্পর্শ না করে সেই লক্ষ্যে উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) ছানাউল ইসলাম প্রতিনিয়ত শীতবস্ত্র (কম্বল) বিতরন করেছেন। তিনি তার কর্যালয়ের পাশেই তৈরি করেছেন ‘মানবতার সেবা কর্ণার’ এতিমখানা, দাতব্য প্রতিষ্ঠানে, ভবঘুরে, ছিন্নমূল, গরীব, অসহায় ও খেটে-খাওয়া মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য সকলকে আহব্বান জানিয়েছেন।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ছানাউল ইসলামের সাথে কথা বললে তিনি জানান, শীতের প্রকোপ দিন দিন বাড়ছে। শৈতপ্রবাহের কারণে শীতার্ত অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানো আমাদের দায়িত্ব ও কর্তব্য। সমাজের বিত্তবান ও মানবিক বোধসম্পন্ন ব্যক্তিরা যদি দুর্দশাগ্রস্ত শীতার্ত ছিন্নমূল, অসহায়, গরীব ও খেটে খাওয়া মানুষের পাশে না দাঁড়ায় তাহলে তাদের দুর্ভোগ বাড়বে। তিনি আরো বলেন, জাতি-ধর্ম-বর্ণ দলমত নির্বিশেষে বিত্তবানদের শীতার্ত বস্ত্রহীন মানুষের পাশে অবশ্যই দাঁড়ানো উচিত। শীতার্ত মানুষের জস্য আমার দুয়ার সব সময় খোলা আছে।