• শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ০৬:৫৬ পূর্বাহ্ন
  • Bengali Bengali English English
সংবাদ শিরোনাম
কোটার উপর হাইকোর্টের রায়ের ওপর আপিল বিভাগের চার সপ্তাহের স্থিতাবস্থা ‘কোটা আন্দোলন পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে’ আইজিপি চৌধুরী আবদুল্লাহ আল মামুনের মেয়াদ বাড়ল কোপা আমেরিকার সেমিফাইনালে আর্জেন্টিনা মতিউর ও তার পরিবারের সম্পত্তি ক্রোকের আদেশ সচিবদের নিয়ে সভার ডাক মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের পেনশন স্কিম: শিক্ষকদের কর্মসূচি পর্যবেক্ষণ করে সিদ্ধান্ত এনবিআরের ফয়সালের শ্বশুর-শাশুড়ির নামে ১৮ ব্যাংক হিসাব এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের জন্য ডিএমপির ১৯ নির্দেশনা ‘এমপিওভুক্ত শিক্ষকদের অবসরভাতা ৬ মাসে দেয়া সম্ভব নয়’ মতিউর ও তার স্ত্রী-সন্তানদের ব্যাংক-বিও হিসাব স্থগিত তিস্তার পানি বণ্টন চুক্তিতে মমতার না, মোদিকে চিঠি ভয়ানক রাসেলস ভাইপার থেকে বাঁচতে বন বিভাগের যে নির্দেশনা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শনিবারের ছুটি বহাল, গ্রীষ্মের ছুটি কমলো বন্যায় সিলেট বিভাগের এইচএসসি পরীক্ষা ৮ জুলাই পর্যন্ত স্থগিত

এডিসি হারুন-সানজিদার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার সুপারিশ

প্রজন্মের আলো / ৬১ শেয়ার
Update সোমবার, ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২৩
এডিসি হারুন হারুন–অর–রশীদ ও এডিসি সানজিদা আফরিন। ছবি: সংগৃহীত

অনলাইন ডেস্ক:

ছাত্রলীগের দুই নেতাকে শাহবাগ থানায় মারধরের ঘটনায় গঠিত তদন্ত কমিটি পুলিশের সাময়িক বরখাস্ত অতিরিক্ত উপকমিশনার (এডিসি) হারুন অর রশিদ এবং এডিসি সানজিদা আফরিনের বক্তব্য নিয়েছে। ভুক্তভোগী ছাত্রলীগ নেতাদেরও বক্তব্য নেওয়া হয়েছে।

তদন্ত প্রতিবেদনে এডিসি হারুন ও এডিসি সানজিদা আফরিনসহ ৫ পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার সুপারিশ করা হবে বলে জানিয়েছেন ডিএমপির যুগ্ম কমিশনার বিপ্লব সরকার।

ছাত্রলীগের নেতাদের পেটানোর ঘটনায় সাময়িক বরখাস্ত হাওয়া এডিসি হারুন অর রশিদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা হতে পারে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

তিনি বলেছেন, হারুনের বিষয়ে আমাদের তাৎক্ষণিকভাবে যেটা করার, সেটা করেছি। এখন তার বিরুদ্ধে মামলা হবে, তদন্ত হবে। সবগুলোই-তো একটা প্রক্রিয়া। তাৎক্ষণিকভাবে যেটা দরকার ছিল আমরা তাকে সাসপেন্ড করেছি। এখন তদন্ত শুরু হয়ে তার নামে যদি মামলা হয়ে থাকে, সে মামলাগুলোর প্রক্রিয়া শুরু হবে।

গত ৯ সেপ্টেম্বর রাতে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের বিজ্ঞানবিষয়ক সম্পাদক ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শহীদুল্লাহ হলের সাধারণ সম্পাদক শরীফ আহমেদ মুনিম এবং সাংগঠনিক সম্পাদক ও ফজলুল হক হলের সভাপতি আনোয়ার হোসেন নাঈমকে শাহবাগ থানায় নির্যাতন করার অভিযোগ ওঠে ডিএমপির রমনা জোনের এডিসি হারুনের বিরুদ্ধে।

ছাত্রলীগ নেতাদের অভিযোগ, ওইদিন রাতে এডিসি হারুন আরেক নারী পুলিশ কর্মকর্তা এডিসি সানজিদা আফরিনের সঙ্গে বারডেম হাসপাতালে আড্ডা দিচ্ছিলেন। ওই সময় সানজিদার স্বামী রাষ্ট্রপতির এপিএস আজিজুল হক মামুন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের দুই নেতাকে সঙ্গে নিয়ে সেখানে যান। তার সঙ্গে এডিসি হারুনের বাগ্বিতণ্ডা হয়। পরে এডিসি হারুন দুই কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ নেতাকে শাহবাগ থানায় তুলে নিয়ে যান। সেখানে তাদের নির্যাতন করা হয়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও সংবাদ

Categories