• মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ১২:৩৫ অপরাহ্ন
  • Bengali Bengali English English
সংবাদ শিরোনাম
একীভূত হচ্ছে ৩০০ প্রাথমিক বিদ্যালয় রয়টার্সের প্রতিবেদন ; ৫ মিলিয়ন ডলারে মুক্তি পেয়েছে এমভি আব্দুল্লাহ ইসরায়েলে হামলা করেছে ইরান ইসরায়েলে আঘাত হানতে সক্ষম ইরানের শক্তিশালী ৯ ক্ষেপণাস্ত্র নওগাঁয় ৪২ কেজি ৫০০ গ্রাম গাঁজাসহ গ্রেফতার ২ মান্দায় মদপানে তিন কলেজ ছাত্রের মৃত্যুর ঘটনায় মামলা নওগাঁর মান্দায় বিষাক্ত মদপানে তিন বন্ধুর মৃত্যু সবার সঙ্গে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করুন: প্রধানমন্ত্রী ঈদের ৫ দিনের সরকারি ছুটি শুরু ঈদুল ফিতর বৃহস্পতিবার ঈদুল ফিতরের তারিখ জানাল সৌদি আরব ১৮ জেলায় ঝড়ের আভাস, নদীবন্দরে সতর্কতা বিরল সূর্যগ্রহণ আজ, দিন হবে রাতের মতো ঝড় ও বজ্রপাতে তিন জেলায় নিহত ৭ আজ বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবস

নওগাঁর মান্দায় দিনব্যাপী বইমেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে

প্রজন্মের আলো / ২১ শেয়ার
Update সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪

সংবাদদাতা:

নওগাঁর মান্দায় দিনব্যাপী ১২তম বইমেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে।   শনিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) উপজেলার মশিদপুর শিক্ষা উন্নয়ন সমিতি ও পাঠাগার আয়োজিত মেলায় বেশ কয়েকটি বইয়ের স্টল অংশ নেয়। যেখানে গল্প, কবিতা, উপন্যাস ও ছোটদের জন্য ছড়ার বই ছিল।

শিক্ষার্থীদের সোশ্যাল মিডিয়ার প্রতি আসক্তি কমিয়ে বই পড়ায় আগ্রহ বাড়াতে এমন আয়োজন বলে জানালেন আয়োজকরা। বইমেলার পাশাপাশি সেখানে আলোচনা সভা, চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা, গল্প বলা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। আশপাশের গ্রামের বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠানের হাজারো শিক্ষার্থী অংশ নেয়।

আয়োজক কমিটির একাধিক সদস্য জানায়, শিক্ষার প্রতি নতুন প্রজন্মকে আগ্রহী করে তোলার জন্য ২০১১ সালে ‘মশিদপুর শিক্ষা উন্নয়ন সমিতি’ গড়ে তোলা হয়। এ সমিতির ব্যানারে শিক্ষার প্রসারে নানা কার্যক্রম চলে বছরজুড়েই। বইমেলা উপলক্ষে দিনের শুরু থেকে গ্রামে উৎসব বিরাজ করে। আশপাশের কয়েকটি গ্রাম ও প্রতিষ্ঠান থেকে শিক্ষার্থীরা মেলায় আসে। পাঠ্য বইয়ের পাশাপাশি মেলা থেকে বিভিন্ন জ্ঞানমূলক বই পেয়ে আনন্দিত শিক্ষার্থীরা।

মশিদপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী হিমেল সরকার জানায়, আমাদের স্কুল মাঠে বইমেলা হচ্ছে। যেখানে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা এসেছে। আমাদের এ প্রত্যন্ত গ্রামে বইমেলায় হওয়ায় খুব ভালো লাগছে। পাঠ্য বইয়ের বাইরে মেলা থেকে বিভিন্ন বই সংগ্রহ করেছি। মেলা থেকে আমরা অনেক কিছু শিখতে পেরেছি।

মশিদপুর শিক্ষা উন্নয়ন সমিতি সাধারণ সম্পাদক শিক্ষক আব্দুর রাজ্জাক বলেন, প্রত্যন্ত এ গ্রামে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থাকার পরও শিক্ষার্থী ঝরে পড়ার হার বেশি। এর কারণ নিম্ন ও মধ্যবিত্ত পরিবার হওয়ায় স্কুলে যাওয়ার প্রবণতা কম। আমাদের সংগঠনের পক্ষ থেকে শিক্ষা উপকরণ ও শিক্ষাবৃত্তি চালু করার পর শিক্ষার্থী ঝরে পড়ার প্রবণতা কমেছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও সংবাদ

Categories