• সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ০১:৪২ অপরাহ্ন
  • Bengali Bengali English English

‘সিরাক-বাংলাদেশ’এর ভুয়া সাইনবোর্ড টানিয়ে অর্থ হাতিয়ে নিলো প্রতারক চক্র

প্রজন্মের আলো / ১২ শেয়ার
Update : সোমবার, ১১ অক্টোবর, ২০২১

প্রজন্মের আলো  ডেস্ক:

ঝিনাইদহের শৈলকুপায় কার্যালয় খুলে মাত্র পাঁচ দিনের ব্যবধানে সহস্রাধিক গ্রাহকের প্রায় দেড় কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। রুহুল আমিন নামের ক্ষতিগ্রস্ত এক গ্রাহক বাদী হয়ে আজ বৃহস্পতিবার এ মামলা করেন। মামলায় ‘সিরাক বাংলাদেশ’ নামে সাইনবোর্ড ঝুলিয়ে ওই সংস্থার কর্মকর্তা পরিচয়দানকারী নাজমুল হাসানের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তিদের আসামি করা হয়েছে।

জানা গেছে,দেশের স্বনামধন্য এনজিও SERAC-Bangladesh (সিরাক-বাংলাদেশ), প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের অধীন এনজিও বিষয়ক ব্যুারোতে নিবন্ধিত একটি স্বনামধন্য বেসরকারী যুব উন্নয়ন সংস্থা যা জাতিসংঘের ইকোনেমিক ও সোস্যাল কাউন্সিলের বিশেষ পরামর্শক প্রতিষ্ঠান।

সারাদেশের ৮টি বিভাগে সরকারের যথাযথ অনুমোদন সাপেক্ষে সংস্থাটির স্বাস্থ্য ও যুব উন্নয়ন কার্যক্রম চলমান রয়েছে। সম্প্রতি ঝিনাইদহ জেলায় কিছু সংখ্যক বেনামী প্রতিষ্ঠান ও স্বার্থান্বেষী মহল প্রতারনার উদ্দেশ্যে অবৈধভাবে, বিনা অনুমতিতে, সিরাক-বাংলাদেশ এর ওয়েবসাইট হতে নাম, তথ্য, এবং খন্ডিত লোগো ইত্যাদি ব্যবহার করে, এবং ০১৭৪২৪২৪৭৬৭ নাম্বার ব্যবহার করে বিভিন্ন লোকজনকে ঋণ/অনুদান ইত্যাদি দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে জামানতস্বরূপ বিভিন্ন জনের কাছ থেকে বেশ কিছু টাকা হাতিয়ে নেয়। ভূক্তভোগীদের পরিচয়ে কেউ কেউ প্রতিষ্ঠানের ওয়েবসাইট থেকে ল্যান্ডলাইন/টিএন্ডটি নম্বর নিয়ে সিরাক অফসে যোগাযোগ করলে উক্ত প্রতারণামূলক অপতৎপরতার বিষয়ে প্রথমে এনজিওটি অবগত হয়।

সিরাক-বাংলাদেশ এর নির্বাহী পরিচালক এস, এম সৈকতের সাথে কথা হলে তিনি জানান, ইতোপূর্বে কোনদিনই ঝিনাইদহ জেলায় কোন ধরনের অফিস বা কার্যক্রম পরিচালনা করে নাই। প্রতারক চক্র তাদের ভূয়া সাইনবোর্ডে মাইক্রোক্রেডিট রেগুলেটরী অথরিটির সনদ (এমআরএ) ভূয়া নাম্বার ব্যবহার করেছে যা কোনকালেই সিরাকের ছিল না বা নেই। এমনকি অত্র প্রতিষ্ঠানের কোথাও কোন ধরনের আর্থিক কর্মকান্ড (ঋণ, আমানত, অনুদান ইত্যাদি) নেই। তাই বিষয়টি নিয়ে আমরা অত্যন্ত উদ্বেগ প্রকাশ করছি। এছাড়াও সেইসব অজ্ঞাত লোকজন বা এসব ভূয়া প্রতিষ্ঠানের সাথে আমাদের হেড অফিস কিংবা কোনও শাখা অফিসের কোনও ধরণের সংশ্লিষ্টতা নেই। আমরা মনে করি, এ ধরনের হীন কর্মকান্ডের মাধ্যমে তারা অত্র প্রতিষ্ঠানের সুনাম ক্ষুন্ন করার পাশাপাশি সাধারন মানুষের ক্ষতি সাধন করতে পারে।

তিনি আরো বলেন, বিষয়টি নিয়ে ইতোমধ্যে ডিএমপির পল্লবী থানায় জেনারেল ডায়েরী (জিডি) করা হয়েছে। অতএব এ ধরনের কোন সংবাদ সিরাক-বাংলাদেশ সংশ্লিষ্ট নয় এবং বর্ণিত ঘটনার বিষয়ে আশা করি আইন- শৃঙ্খলা বাহিনী প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহন করে অপরাধীদের যথাযথ বিচার নিশ্চিত করবেন। উল্লেখিত বিষয় নিয়ে প্রথম সারির একটি পত্রিকা সিরাক-বাংলাদেশ এর সাথে কোনরূপ যোগাযোগ না করেই সংবাদ প্রকাশ করে, বিষয়টি নিয়ে সংশ্লিষ্টদের বিভ্রান্ত না হবার অনুরোধ করেছেন এস, এম সৈকত এবং অবিলম্বে গণমাধ্যমে সঠিক তথ্য প্রকাশ করে জনসাধারনকে সচেতন করার আহ্বান জানিয়েছেন।

আরও পড়ুন-

‘সিরাক-বাংলাদেশ’-এর নামে বিভ্রান্তি ছড়ানো হচ্ছে-‘প্রতিষ্ঠানটি জানতো না কিছুই’


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও সংবাদ

বিশ্বে করোনা ভাইরাস

বাংলাদেশে

আক্রান্ত
১,৫৬৫,৪৮৮
সুস্থ
১,৫২৭,৮৬২
মৃত্যু
২৭,৭৬৮
সূত্র: আইইডিসিআর

বিশ্বে

আক্রান্ত
২৪০,১৪৯,৬৬৬
সুস্থ
মৃত্যু
৪,৮৯৩,০৩৪

Categories